এক সঙ্গে উচ্চমাধ্যমিক পাস করল পুরো পরিবার

বাপ-মা আর ছেলে। তিন জনেই একই বছরে আইএ পাস! ব্যাপারটা অবাক করার মতো, কিন্তু ঘটনা সত্য। পুরো পরিবারের প্রতিটি সদস্যের জন্য আনন্দময় এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের কেরালায়। গর্বিত এই মানুষগুলো হচ্ছেন মোহাম্মদ মুস্তফা, তার স্ত্রী নুসাইবা ও ছেলে শামস। খবর দ্য নিউজ মিনিটের।

৪৩ বছর বয়সি মুস্তাফা মাধ্যমিক পাস করেই ভাগ্যের সন্ধানে চলে যান আবুধাবি। সেখানে একটি পশু চিকিৎসালয়ে বহু বছর কাজ করেন। দেশে ফিরে মাধ্যমিক পাস নুসাইবাকে বিয়ে করেন তিনি। তাদের ঘরে আসে ছেলে শামস। শামস বড় হয়ে স্কুলে ভর্তি হয়। মাধ্যমিকও পাস করে। এসময় কেরালায় স্বাক্ষরতা অভিযানের খোঁজ পান মুস্তফা আর নুসাইবা। পড়া না চালিয়ে যাওয়ার আফসোস ছিল এই দম্পতির। এবার নতুন করে শুরু করার সাহস জোগায় ছেলেই। তারাও ভর্তি হয়ে যান নতুন শিক্ষাক্রমে।

দু’বছর পড়ার ফাঁকে কাজ এবং কাজের ফাঁকে পড়া এই রুটিন চলেছে। নুসাইবা পেয়েছেন ৮০ শতাংশ নম্বর। প্রথম বিভাগে পাশ করেছেন মুস্তাফাও। ছেলে শামসও গ্রেড নিয়ে পাস করে। পুরো পরিবারকেই এই দু’বছর প়ড়িয়েছেন একই শিক্ষক। তিনজনেরই বিষয় ছিল কমার্স। শামস এবার চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্সি পড়ার স্বপ্ন দেখেন। এদিকে তার বাবা মাও অ্যাকাউন্টেন্সি পড়া শুরু করে দিয়েছেন।

সংবাদমাধ্যমের সামনে মুস্তফা বলেন, আমরা অনেক বেশি কুন্ঠিত ছিলাম শুরুতে। আত্মীয়স্বজনকে কিছু জানাইনি। আজ আমরা খুশি। আমরা এটুকু বুঝেছি, শেখার কোনও বয়সই হয় না। আর তা নিয়ে কুন্ঠিত থাকাটাও নিছক সংস্কার।

নিউজ গার্ডিয়ান/ এমএ/