অস্ট্রেলিয়ায় শীর্ষ ইঞ্জিনিয়ারের তালিকায় বাংলাদেশের নিতু

ঢাকা: ২০২০ সালে অস্ট্রেলিয়ার শীর্ষস্থানীয় ৩০ জন ইনোভেটিভ ইঞ্জিনিয়ারের তালিকায় স্থান পেয়েছেন মেলবোর্নে কর্মরত বাংলাদেশি গবেষক ড. নিতু সাঈদ। পুরো অস্ট্রেলিয়া থেকে গবেষকরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে তাদের রিসার্চ প্রজেক্ট জমা দেন এবং সেখান থেকে নির্বাচিত ৩০ জনের নাম ইঞ্জিনিয়ার্স অস্ট্রেলিয়া প্রতিবছর ঘোষণা করে।

নিতু সাঈদের গবেষণার ক্ষেত্র ইলেকট্রনিক্স এবং কমিউনিকেশন্স, ন্যানো-ম্যাটেরিয়ালের অতি-সূক্ষ্ম ও পাতলা লেয়ার নিয়ে গবেষণা করছেন তিনি। এগুলো মানুষের চুলের চেয়ে হাজারগুণ পাতলা। ন্যানো-স্কেল ইলেকট্রনিক্সের ক্ষেত্রে তিনি যে কাজ করছেন সেগুলোর সুফল পাওয়া যাবে ভবিষ্যতে। মোবাইলে যে টাচ-স্ক্রিন ব্যবহার করা হয় সেই ন্যানো ম্যাটেরিয়ালকে পুনঃস্থাপিত করতে পারবে ড. নিতু সাঈদ উদ্ভাবিত নতুন ন্যানো ম্যাটেরিয়ালগুলো।

ড. নিতু সাঈদের ২৫ টিরও বেশি গবেষণা-প্রবন্ধ আছে। বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি (বুয়েট) থেকে তিনি ব্যাচেলর ও মাস্টার্স ডিগ্রি করেন ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে। ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার আরএমআইটির ভাইস-চ্যান্সেলর পিএইচডি অ্যাওয়ার্ড স্কলারশিপ নিয়ে এসে অস্ট্রেলিয়ার আরএমআইটি ইউনিভার্সিটি থেকে ২০১৯ সালে তিনি ম্যাটেরিয়ালস ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রি সম্পন্ন করেন। এরপর একই বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনি পোস্ট-ডক্টরাল কাজ শুরু করেন। এ ছাড়া, এর পাশাপাশি ইউনিভার্সিটি অব মেলবোর্নে ভিজিটিং রিসার্চার হিসেবেও তিনি কাজ করছেন।

নিউজ গার্ডিয়ান/ এমএ/