বিএনপি কার্যালয় গুজবের ফ্যাক্টরি: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘রাজধানীর পল্টনে অবস্থিত বিএনপির প্রধান কার্যালয় আস্ত একটা গুজবের ফ্যাক্টরি। ওই কার্যালয়ে বসে বিএনপি নেতারা প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে অপপ্রচার করছে, গুজব ছড়াচ্ছে।’ শনিবার দুপুরে (২৭ জুলাই) রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এক র‍্যালি উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘গুজব থেকে গণপিটুনি−এই গুজবের পেছনেও এই দলটির হাত রয়েছে। এদের যে গুজবের ফ্যাক্টরি, সেই ফ্যাক্টরি থেকে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। তারা কী করছে, কোথায় বসে ষড়যন্ত্র হচ্ছে, তা আমরা জানি। দেশে হচ্ছে, বিদেশেও হচ্ছে।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়েও বিএনপি নেতারা মিথ্যাচার করছেন বলে অভিযোগ করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘আন্দোলনে ও নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে তারা আজ তাদের খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য জন্য হা-হুতাশ করছেন। তাদের নেত্রীর শারীরিক অবস্থা যতটা না খারাপ, তার চেয়ে বেশি দাবি করছেন। খালেদা জিয়া দেড় বছর কারাগারে। কিন্তু বিএনপি দেড় মিনিটও রাজপথে কোনও আন্দোলন করতে পারেনি। শুধু অপপ্রচার এদের পুঁজি। গল্পের রাখাল বালকের মতো খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতি আর অবনতি। ডাক্তাররা বলে না, অথচ বিএনপি বলে। কেন বলে তা আমরা জানি।’

সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে উল্লেখ করে নেতাকর্মীদের সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানিয়ে সড়ক ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘সারাদেশে সাম্প্রদায়িক অশুভ শক্তির যে তৎপরতা আছে, এই শক্তির তৎপরতা আপাতত নিষ্ক্রিয় হলেও তারা শেষ হয়ে গেছে, এ কথা ভাবার কোনও কারণ নেই। তারা তলে তলে সক্রিয় রয়েছে। টেরোরিজম, বিশেষ করে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি এখনও দেশের অভ্যন্তরে ও বাইরে চালিয়ে নানামুখী চক্রান্ত চালিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বিভিন্ন গুজব-আতঙ্ক ছড়ানো হচ্ছে। বাংলাদেশের নাগরিক হয়েও বিদেশে গিয়ে দেশের বিরুদ্ধে যারা কথা বলছে, এর পেছনে কোনও ষড়যন্ত্র আছে কি না এবং এদের সবার কর্মকাণ্ড-অপ্রপ্রচারের মধ্যে যোগসূত্র আছে কি না, এই বিষয়টি আমাদের গভীরভাবে খতিয়ে দেখতে হবে।’ সরকারবিরোধী এসব অপপ্রচারের জবাব দিতে স্বেচ্ছাসেবক লীগকে আরও সুসংহত, শৃঙ্খল ও ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান কাদের।

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের সামনে উন্নয়নের বিশাল সুযোগ রয়েছে। বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে ওইসব সুযোগ কাজে লাগাতে হবে। ভিশন ২০২১, ২০৪১ সহ সব পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনগুলোকে যুগোপযোগী, সুশৃঙ্খল, স্মার্ট ও মডার্ন হওয়ার আহ্বান জানাই।’

স্বেচ্ছাসেবক লীগের রজতজয়ন্তী উপলক্ষে র‍্যালি শুরুর আগে কেক কাটেন ওবায়দুল কাদের। তার নেতৃত্বেই র‍্যালি শুরু হয়। এতে ব্যানার-ফেস্টুন, ঘোড়ার গাড়ি, মোটরসাইকেল শোভাযাত্রাসহ নেতাকর্মীরা অংশ নেন। এর আগে সংগঠনের নেতাকর্মীরা ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

এ সময় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাছিম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা মো. আবু কাওছার, সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথসহ সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজ গার্ডিয়ান/ এমএ/