আন্দোলনকারীদের নামে জাবি প্রশাসনের হত্যাচেষ্টা মামলা!

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মহিবুর রউফ শৈবালকে ‘হত্যার চেষ্টা’ করেছেন আন্দোলনকারীরা- এমন বিষয় মামলার এজহারে উল্লেখ করে অজ্ঞতনামা ৫০ থেকে ৬০ জনের নামে মামলা দায়ের করছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

শুক্রবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা সুদীপ্ত শাহিন এই মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার এজহারে উল্লেখ করা হয়, ‘আন্দোলনকারী নজির আমিন চৌধুরী জয় শিক্ষার্থীদের রোষনলে পড়লে সহকারী প্রক্টর মহিবুর রউফ শৈবাল তাকে উদ্ধার করতে যায়। এসময় আন্দোলনকারীরা সহকারী প্রক্টরকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এই সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ৫০-৬০জন আন্দোলনকারী সহকারী প্রক্টরকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার পুরষাঙ্গে সুক্ষ ধারালো কোন অস্ত্র ধারা আঘাত করে। উক্ত আঘাতের ফলে প্রচুর রক্তপাত ও গভীর ক্ষতের সৃষ্টি হয়।’

এদিকে এজহারে অজ্ঞতনামা ৫০-৬০ জনকে আন্দোলনকারীর কথা উল্লেখ করলেও ঘটনাস্থলে দুজন আন্দোলনকারী ছিল বলে জানিয়েছেন আন্দোলননের অন্যতম মুখপাত্র অধ্যাপক রায়হান রাইন। তিনি বলেন, ‘গত ৩০ অক্টোবর অবরোধ ও ধর্মঘট চলকালীন সময় পুরাতন কলা ভবনের সামনে দুজন আন্দোলনকারী ছিল। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন মামলার এজহারে উল্লেখ করেছেন ৫০-৬০ জনের কথা। যা মিথ্যাচর ছাড়া আর কিছু নয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আপনা সবাই একটা ভিডিও দেখেছেন। সেখানে সহকারী প্রক্টর মহিবুর রউফ শৈবাল তার বিভাগের কিছু অনুগত ছাত্রদের নিয়ে আমাদের দুই আন্দোলনকারীকে হেনস্থা করে। আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক নজির আমিন চৌধুরী জয়কে টেনে মাটিতে ফেলে দেয়। ওই ভিডিওতে দেখা যায়, সহকারী প্রক্টর শৈবাল মাটিতে পড়ে যাওয়া জয়কে তুলে সুস্থভাবে হেটে চলে যান। এমন সুস্থ মানুষকে আহত বানিয়ে প্রশাসন নাটক করছে।’

নিউজ গার্ডিয়ান/ এমএ/