আফগানিস্তানে ট্রাম্পের আকস্মিক সফর

আফগানিস্তানে থাকা মার্কিন সেনাদের ধন্যবাদ জানাতে দেশটিতে আকস্মিক এক সফরে গিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প।

এই সময় তিনি জানিয়েছেন, তার প্রশাসন শান্তি চুক্তি নিয়ে তালেবানদের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে। তালেবানরা একটি চুক্তি করতে চাইছে বলেও জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার রাতে একটি বিমান ঘাঁটিতে ট্রাম্প ও আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানির বৈঠকও হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর আফগানিস্তানে এটিই ট্রাম্পের প্রথম সফর।

তালেবানদের সঙ্গে শান্তি আলোচনা পুনরায় শুরু ও দু’পক্ষের মধ্যে বন্দি বিনিময়ের দিনকয়েক পর ব্যাপক গোপনীয়তার মধ্যে থ্যাংকস গিভিং ডে-তে মার্কিন প্রেসিডেন্ট দক্ষিণ এশিয়ার এ দেশটি সফর করলেন।

রিপাবলিকান এ প্রেসিডেন্ট বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ৮টার দিকে আফগানিস্তান নামেন; সৈন্যদের সঙ্গে থ্যাংকস গিভিং ডে-র ডিনারে অংশ নিয়ে মধ্যরাতের আগেই যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশ্যে রওনা হন।

সৈন্যদের উদ্দেশ্যে দেওয়া বক্তৃতায় ট্রাম্প আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা ‘উল্লেখযোগ্য পরিমাণ’ কমিয়ে আনা হবে বলেও ঘোষণা দেন।

২০০১ সালে তালেবান উৎখাতে অভিযান শুরুর ১৮ বছর পর দক্ষিণ এশিয়ার দেশটিতে এখনও প্রায় ১৩ হাজার মার্কিন সেনা অবস্থান করছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, “চুক্তি কিংবা পূর্ণাঙ্গ বিজয় অর্জিত হওয়া পর্যন্ত আমরা আফগানিস্তানে থাকছি।

নিউজ গার্ডিয়ান/ এমএ/